বিশ্বের সবচেয়ে দামি ৫টি অদ্ভুত সুপার বাইক

বর্তমান দিনে বেশিরভাগ মানুষের কাছে একটা করে বাইক আছে। আবার যারা বাইক নিয়ে বেশি সৌখিন, তাদের কাছে একাধিক বাইক থাকাটা কোন অস্বাভাবিক ব্যাপার নয়। আজ আমরা আলোচনা করতে যাচ্ছি পৃথিবীর সবচেয়ে দামী এবং অদ্ভুত 5 টি বাইক নিয়ে অথবা আপনি বলতে পারেন ভবিষ্যতে এই বাইক গুলোই হবে আমাদের সফরসঙ্গী। যা আমাদের জীবনকে আরও সহজ বানিয়ে দেবে। এই বাইক গুলো কোন রহস্য থেকে কম নয়।

Bmw motorrad next 100

সাইন্স ফিকশন মুভিগুলোতে হয়তো আপনি এ ধরনের বাইক দেখেছেন। কিন্তু বিএমডব্লিউ কোম্পানি সেই স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিয়েছে। এই বাইকের সেল ব্যালান্সিং সিস্টেম বাইকটি সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট। এই চালানোর জন্য বিশেষ ধরনের চশমা পরতে হয়। যার মাধ্যমে পুরো রাস্তা সম্বন্ধে জানতে পারে। যেমন ট্রাফিক বা রোড কন্ডিশন এবং সামনের রাস্তা সম্বন্ধে কিছু ধারণা পায়। কার্বন ফাইবার দিয়ে তৈরি এই বাইকের কোন জয়েন্ট নেই। চালক যেই দিকে যাওয়ার জন্য হ্যান্ডেল ঘোরায় এই বাইক সেদিকে চলার জন্য নিজের কার্বন ফাইবার বডিকে অ্যাডজাস্ট করে নেয়।

Yamaha bms chopper

১৭00 সিসির এই বাইকটি বেশ শক্তিশালী। এর সিট এ লাল ভেলভেট কাপড় লাগানো আর বাকি অংশে 24 ক্যারেট সোনার পোটিং করা। এর দাম পাঁচ লক্ষ ডলার বা ভারতীয় টাকায় তিন কোটি 25 লক্ষ টাকা। যে সমস্ত মানুষরা অন্যদের থেকে নিজেকে আলাদা দেখাতে চায় এবং যাদের কাছে অগুনতি টাকা আছে তাদের জন্য একটি বেস্ট অপশন ।

আরও পড়ুনঃ বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী 5 টি তলোয়ার

Tron Light

এই গাড়িটি দেখে আপনাদের মনে হতে পারে এটা রিয়েল নয়। কিন্তু বলে দেই এটা একটা রিয়েল বাইক। বর্তমানে বাইকটি বাজারেও চলে এসেছে এবং কিছু মানুষ বাইকটি চালিয়ে এনজয় কর। বাইকটি রাস্তায় চালানোর অনুমতি আছে। গাড়িটির ইঞ্জিন 996 সি সি। এর দাম 55 হাজার ডলার। যা ভারতীয় টাকা মাত্র 36 লক্ষ টাকা। আপনি যদি Tron মুভি দেখে থাকেন, তাহলে আপনার মনে পড়বে সেখানে অনেক অদ্ভুত অদ্ভুত বাইক ব্যবহার করা হয়েছিল। সেই বাইকে এখন আপনি রাস্তায় চালাতে পারবেন। বাইকটি তৈরি হয়েছে স্টিল, কার্বন ফাইবার এবং ফাইবার গ্লাস দিয়ে। গাড়িটি প্রায় আট ফুট লম্বা এবং ২ ফুট চওড়া।

V10 superbike

এটি পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী দ্রুতগামী সুপার বাইক। যা 0 থেকে 60 কিমি স্পিডে পৌঁছায় 1.75 সেকেন্ডে। বাইকটির টপ স্পিড হোল 560 কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা। অর্থাৎ আপনি নিউক্লিয়ার ব্লাস্ট কে পিছনে ফেলে এগিয়ে যেতে পারেন সহজেই। বাইকটির লুক এর কারণে একে অনেকেই পছন্দ করেন । কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো বাইকটি চালানো আইন বিরোধী। এর দাম ৫ লক্ষ ৫৫০০০ ডলার অর্থাৎ তিন কোটি 60 লক্ষ টাকা।

Peraves ecomobile

প্লেনের ককপিট এর মত দেখতে peraves ecomobile বাইকের তালিকায় এক অনন্য জায়গা তৈরি করে নিয়েছে। বিএমডাব্লিউ কে সিরিজ মোটর বাইকের ইঞ্জিন দিয়ে তৈরি এই বাইক। এই বাইক চার চাকার গাড়ির মতো চারদিক থেকে বন্ধ। এর সামনে পিছনে দুটো বড় চাকার সাথে মাঝখানে দুটো ছোট সাইড হুইল লাগানো আছে। যেগুলো কম গতিতে অটোমেটিক্যালি কাজ শুরু করে। অর্থাৎ নিচে নেমে যায়। এই গাড়িতে একটি বিলাসবহুল গাড়িতে যা যা সুবিধা থাকে তা সব রয়েছে। কিন্তু হ্যান্ডেলটি সাধারন বাইকের মতোই। এর দাম ৪৮ লক্ষ টাকা।

Leave a Comment